স্বাস্থ্য

Mens health tips : পুরুষদের মধ্যে বন্ধ্যাত্বের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্রমশ!! এই পাঁচটি টিপস এ সুস্থ রাখুন নিজেকে !!

তনুশ্রী ভান্ডারী ডেস্ক ঃ-মহিলাদের বন্ধ্যাত্ব বা প্রজনন ক্ষমতা নিয়ে সবসময় আলোচনা হয়। তবে পুরুষের ক্ষেত্রেও দেখা দিতে পারে এই একই সমস্যা। আর এই সমস্যা এখন বাড়ছে। মোটামুটি গোটা পৃথিবীতেই এই সমস্যা এখন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই প্রতিটি পুুরুষ মানুষকে অবশ্যই এই বিষয়টি নিয়ে হয়ে যেতে হবে সতর্ক। আসলে জীবনে এখন সমস্যার শেষ নেই। এর থেকেই দেখা দিচ্ছে মূল সমস্যা। সেক্ষেত্রে পুরুষ মানুষের সার্বিক স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে ফার্টিলিটি (Fertility) ও স্পার্ম কাউন্টেও (Sperm Count) দেখা দেয় সমস্যা। এই কারণেই এখন পুরুষের মধ্যেও বাড়ছে বন্ধ্যাত্ব (Infertility)।
কেন এই সমস্যা দেখা দিচ্ছে?
এই প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞদের মত, এখনকার জীবনযাত্রাই মূলত এই সমস্যার নেপথ্যে দায়ী। এক্ষেত্রে এই জীবনযাত্রার ভুলভ্রান্তির জন্য শারীরিক ঘনিষ্ঠিতার ইচ্ছা কমছে, এমনকী ইরেকটাইল ডিজঅর্ডার, জেনিটাল আলসার, প্রোস্টেটের সমস্যা, ইজাক্যুয়েশনে সমস্যা ইত্যাদি দেখা দিচ্ছে। আর এই সব বিষয় মিলিয়েই তৈরি হচ্ছে মূল জটিলতা।
এছাড়া দুশ্চিন্তা, উৎকণ্ঠার কথাও ভুলে যাওয়া চলবে না। এক্ষেত্রে দুশ্চিন্তার কারণে শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোন কমে যায় ছেলেদের। এর ফলে স্পার্ম তৈরি হতে সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়া খাবারদাবার ঠিক না থাকা, না ঘুমানোও সমস্যা তৈরি করে। এক্ষেত্রে এই উপায়েই সমস্যা দূর করুন।
১. এসটিআই স্ক্রিনিং প্রয়োজন
এক্ষেত্রে নিয়মিত এইচআইভি (HIV), সিফিলিস, হারপিস সহ অন্যান্য রোগ রয়েছে কিনা চেকআপ করতে হবে। এক্ষেত্রে এই সমস্যা থেকে দূ্রে থাকতে আপনি সেক্সের সময় কন্ডোম (Condom) ব্যবহার করুন। তবেই অনেক সমস্যা হয়ে যাবে দূর।
২. ধূমপান নয়
বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ধূমপান করলে শরীরের অনেক ক্ষতি হয়। তাই শরীরকে ক্ষতি মুক্ত করতে চাইলে ধূমপান করতে যাবেন না। বরং এই অভ্যাস আজই ছাড়ুন।
৩. পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন
প্রতিটি মানুষের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা উচিত। কারণ আপনি পরিষ্কার থাকতে পারলেই অনেক সমস্যার হয়ে যেতে পারে সমাধান। এক্ষেত্রে ইনফেকশনের আশঙ্কা কমে। তাই আন্ডারগারমেন্টস পরিষ্কার রাখুন। এমনকী জেনিটাল নিয়মিত পরিষ্কার করুন।
৪. ভালো খাবার খান
বাইরের খাবার খেলে কিন্তু এই সময়টায় চলবে না। বরং আপনাকে খেতে হবে মরশুমি তাজা, ফল, শাক, সবজি। এই ধরনের খাবারে থাকা ফাইবার, ভিটামিন, মিনারেল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ফার্টিলিটির হার বাড়ায়। তাই এবার থেকে বাইরের খাবার ছাড়ুন।
 ৫. নিয়মিত এক্সারসাইজ
নিয়মিত ব্যায়াম (Exercise) করা হতেই পারে আপনার অন্যতম হারিয়ার। এক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, দিনে মাত্র ৩০ মিনিট ব্যায়াম করতে পারলেই অনেক সমস্যার হয়ে যায় সমাধান। এমনকী শরীরও ভালো থাকে। কমে সুগার প্রেশার, কোলেস্টেরল সহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *