রাজ্যের খবর দেশের খবর

পুলিশ প্রশাসন কর্তাদের ফেক আইডি বানিয়ে টাকা তোলার অভিযোগে গ্রেফতার এক ব্যক্তি।

অমর ঘড়ুই, কাকদ্বীপ :- গত ইংরেজি ১/৬/২০২১তারিখে কাকদ্বীপের মহকুমা পুলিশ আধিকারিক শ্রী অনিল কুমার রায় এর পারিবারিক ফটো ব্যবহার করে তার নামে ফেক ফেসবুক প্রোফাইল তৈরী করে ফেসবুকের বন্ধুদের কাছে ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট পাঠানো হয়। অনেকে ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট গ্রহন করেন।তারপর শ্রী রায় হাসপাতালে ভর্তি, চিকিৎসার জন্য ফোন পে বা গুগল পের মাধ্যমে ২৫০০০/৩০০০০ টাকা ধার হিসাবে পাঠানোর অনুরোধ জানানো হয়।সন্দেহ হওয়ায় কয়েকজন বন্ধু তার সঙ্গে ফোন বা মেসেঞ্জারে যোগাযোগ করেন। তখন তিনি এই আসল ফেসবুকের মাধ্যমে পোষ্ট করে প্রতারকের ফাঁদে পা না দেবার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানান। ফেক ফেসবুক একাউন্ট ওই রাতেই বন্ধ করে দেওয়া সম্ভব হয়।
অনিলবাবুর অভিযোগ এর ভিত্তিতে সুন্দরবন পুলিশ জেলার সাইবার ক্রাইম থানায় এই বিষয়ে একটি জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করা হয়। তদন্ত করে জানা যায় মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের রাইসেন জেলার পাপডা গ্রামের দীনেশ গুরজার নামে এক প্রতারক তার মোবাইল ফোন ব্যবহার করে এই ফেক ফেসবুক একাউন্ট খুলে প্রতারণার চেষ্টা করে। সুন্দরবন সাইবার ক্রাইম থানার পি এস আই রিধি সরকারের নেতৃত্বে একটি পুলিশটিম মধ্যপ্রদেশ পাঠানো হয়। উক্ত অপরাধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে ও তার ওই মোবাইল ফোনটিও সিমকার্ড সহ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। আজ আসামীকে কাকদ্বীপ আদালতে হাজির করানো হয় ও মহামান্য আদালত এর নির্দেশে তাকে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তদন্ত চলছে।জেলার পুলিশ সুপার মাননীয় শ্রী ভাস্কর মুখার্জি, আই পি এস মহাশয়ের নির্দেশএ ও সরাসরি তত্বাবধানে এই অপরাধের দ্রুত কিনারা ও অপরাধীকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। মাননীয় পুলিশ সুপার , অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর শ্রী রাকেশ সিং এই আসামীকে দীর্ঘক্ষন জিজ্ঞাসাবাদ করেন ও পুলিশ দলের কাজের প্রশংসা করেন। কাকদ্বীপ মহকুমা পুলিশ আধিকারিক এর পরিবারের পক্ষ থেকেও সুন্দরবন পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার মাননীয় শ্রী ভাস্কর মুখার্জি মহাশয়ের এর নেতৃত্বে সাইবার ক্রাইম থানার এই তৎপরতা ও সাফল্যের জন্য আন্তরিক অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *