রাজ্যের খবর

রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর তৈরিতে উদ্যোগী নবান্ন !

তনুশ্রী ভান্ডারী ডেক্স ঃ-নেতাজি সুভাষ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আদলেই আরও এক বিমানবন্দর তৈরির তোড়জোড় রাজ্যে। বাংলার দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর (Airport)গড়ার লক্ষ্যে জমির খোঁজ শুরু করল রাজ্য সরকার। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসনকে এর জন্য জমি খোঁজার নির্দেশ দিয়েছে নবান্ন।

সূত্রের খবর, মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) জেলাশাসককে চিঠিতে প্রয়োজনীয় নির্দেশের কথা জানিয়েছেন। অন্তত ৩ কিলোমিটার রানওয়ে তৈরি হতে পারে, এমন এলাকা খুঁজতে হবে। সেইমতো জমি খোঁজার কাজও শুরু হয়েছে বলে খবর।

দমদম বিমানবন্দর ছাড়াও রাজ্যে যে ক’টি বিমানবন্দর রয়েছে, তার মধ্যে বহুল ব্যবহৃত উত্তরবঙ্গের বাগডোগরা (Bagdogra)। উত্তরের দিকে আকাশপথে যোগাযোগের জন্য এই একটিই বিমানবন্দর। তাও আড়ে-বহরে দমদম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তুলনায় ঢের ছোট। বাগডোগরার উপর থেকে চাপ কমাতে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের মধ্যেই উত্তরবঙ্গে আরও তিনটি বিমানবন্দর তৈরির কাজ এগোচ্ছে – বালুরঘাট, মালদহ এবং কোচবিহার। ইতিমধ্যেই এই তিন জেলার কাজ পরিদর্শন করে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল।এর মধ্যে কোচবিহারের (Cooch Behar) রাজ আমলের পরিত্যক্ত বিমানবন্দরটিরই হাল ফিরিয়ে পরিষেবা চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বাকি বিমানবন্দরের কাজ চলছে। এছাড়া মধ্যবঙ্গে দুর্গাপুরের অণ্ডালে রয়েছে কাজী নজরুল বিমানবন্দর। তবে তাতে খুব বেশি বিমান চলাচল করে না।
এবার কলকাতা লাগোয়া দমদমের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উপর চাপ কমাতে উদ্যোগী হল রাজ্য সরকার। শহর সংলগ্ন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় সেই জমি খোঁজার কাজ শুরু হল। এ বিষয়ে রাজ্যের পছন্দ ভাঙড় এলাকা। এখানে অনেকটা ফাঁকা জমি পাওয়ার সম্ভাবনা। নবান্ন সূ্ত্রে খবর, ৩ কিলোমিটার রানওয়ে তৈরির মতো জায়গা প্রয়োজন। তৈরি হবে হ্যাঙার, বোয়িং ৭৭৭-এর মতো বড়সড় যাত্রীবাহী বিমান ওঠানামার জায়গা থাকবে নতুন বিমানবন্দরটিতে। এমনই পরিকল্পনা রাজ্য সরকারের। মূলত দমদম বিমানবন্দরের উপর চাপ কমাতেই এই উদ্যোগ। সেক্ষেত্রে রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে উঠতে চলেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার এয়ারপোর্টটি। এছাড়া পুরুলিয়ার ছড়রায় আরেকটি বিমানবন্দর তৈরির পরিকল্পনাও রয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *