স্বাস্থ্য

মৃত্যু হতে পারে অতিরিক্ত পরিশ্রমের ফলে, ওভার ওয়ার্কিং এর জন্য মৃত্যুর হার বেড়েছে ২৯ শতাংশ।

বিউরো :- অতিরিক্ত কাজের চাপ (Work Pressure) নতুন কথা নয়। কর্মজীবনের প্রবেশ করা মাত্রই এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে সকলকে। কাজের চাপে পরিবর্তন ঘটেছে জীবনযাত্রার। সময় মতো খাওয়া নেই, নির্দিষ্ট সময় ঘুমানোর সময় নেই। সারাক্ষণ দৌড়ে চলেছেন সকলে। অর্থ উপার্জনের (Income) জন্য চলছে কঠোর পরিশ্রম (Heard Word)।

বসের দেওয়া টার্গেট পূরণের জন্য কাজ করতে হচ্ছে ১২-১৩ ঘন্টা। এর থেকে শরীরে বাসা বাঁধছে একাধিক রোগ (Disease)। শুধু তাই নয়, ওভারওয়ার্কিং-এর জন্য মৃত্যু হচ্ছে বহু মানুষের। গবেষণায় উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

কাজের চাপের জন্য ১৯৪ টি দেশে ২৯ শতাংশ মানুষের মৃত্যু হার বেড়েছে। এমনই বলছে গবেষণা। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (WHO)- এর পক্ষ থেকে একটি বিশেষ গবেষণা করা হয়। গবেষণায় (Research) জানা গিয়েছে, সপ্তাহে ৫৫ ঘন্টা বা তার বেশি কাজ কাজ করে। এই অধিক সময় কাজ করার জন্য স্ট্রোকের (Stroke) সম্ভাবনা ৩৫ শতাংশ বেড়ে যায়। এমনই উঠে এল গবেষণায়। জানা গিয়েছে, অধিক কাজের চাপের জন্য কম-বেশি সকলেই মানসিক চাপে ভুগছেন। এই মানসিক চাপের (Mental Stress) জন্য একাধিক রোগ শরীরে বাসা বাঁধে। মানসিক চাপের জন্য ডায়াবেটিস (Diabetes), ব্লাড প্রেসার (Blood pressure) ও হার্টের (Heart) রোগ দেখা দিচ্ছে।

জানা গিয়েছে, স্ট্রেসের জন্য শরীরে হরমোন নিঃসরণ বেড়ে যায়। বেশি কাজ করা জন্য ঘুম (sleep) কম হয়। পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে শরীরে নানা রকম জটিলতা (illness) দেখা দেয়। কাজের চাপে অনেকেই শরীরচর্চা (Exercise) করেন না। এর থেকে ওবেসিটি (obesity), হার্টে (heart) ও কিডনিতে (kidney) ফ্যাট জমে। এছাড়াও, খারাপ খাদ্যাভ্যাসের (Diet) জন্য শরীরে রোগ দেখা দেয়। আজকাল সকলেই রেস্তোরাঁর খাবারে অভ্যস্ত। এই ধরনের খাবার থেকে শরীরে নানা রকম রোগ (disease) দেখা দিচ্ছে। এছাড়াও, কাজের চাপে সময় মতো না খাওয়ার জন্য খাবার ঠিক মতো হজম হয় না। এর থেকে পাচনক্রিয়ার ওপর খারাপ প্রভাব পড়ে। এর থেকে শরীরে বাসা বাঁধে একাধিক মারণরোগ। আর এর থেকে মৃত্যু (Death) পর্যন্ত হতে পারে। তাই সুস্থ থাকতে চাইলে অতিরিক্ত পরিশ্রম করবেন না। অতিরিক্ত পরিশ্রমের কারণে শরীরে বাসা বাঁধে একাধিক রোগ। আর এই রোগ মৃত্যুর কারণ হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *