আন্তর্জাতিক

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা! ফেসবুক কমেন্ট এর জেরে রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দুদের বাড়িঘরে আগুন বলছে পুলিশ,

বিউরো ঃ- বাংলাদেশে দুর্গাপূজার সময় টানা তিনদিন ধরে পূজা মণ্ডপ ও মন্দিরে হামলার ঘটনার রেশ না কাটতেই এবার রংপুর জেলার পীরগঞ্জে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে আগুন দেবার ঘটনা ঘটেছে, জানিয়েছে পুলিশ।

হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক তরুণ ফেসবুকে একটি পোষ্টে ‘ইসলাম বিদ্বেষী’ কমেন্ট করার কথিত অভিযোগে ১৮টির মতো ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলার সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান।

রোববার রাত দশটার দিকে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। পরে দমকল বাহিনী আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মোঃ কামরুজ্জামান জানিয়েছেন, “ভালবাসার প্রস্তাব নামে একটি ফেসবুক আইডির প্রোফাইল ফটোতে কাবা শরীফের ছবি ছিল। সেখানে ওই কমেন্ট করা হয়।”

“তবে এটা ফেক আইডি হবে বলে আমরা ধারণা করছি – নামেই বোঝা যায়। কিন্তু উত্তেজিত জনতা কিছু ঘরবাড়িতে আগুন দিয়েছে,” বলছেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

সেখানে পুলিশ, বিজিবি ও র‍্যাবের সদস্য মোতায়েন রয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে বলে সকাল আটটার দিকে বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন তিনি।

১৩ই অক্টোবর দুর্গাপূজার অষ্টমীর দিন কুমিল্লা শহরে একটি পূজা মণ্ডপে কোরআন পাওয়ার পর সেখানে পূজা মণ্ডপে হামলা হয়।

এরপর টানা তিনদিন নোয়াখালী, ঢাকা, কিশোরগঞ্জ, চাঁদপুর, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় পূজা মণ্ডপ ও মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটে। পীরগঞ্জের আগে সর্বশেষ শনিবার ফেনীতে সংঘর্ষ হয়েছে।

তিনদিনে অন্তত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তিনদিনে ৭০টি পূজামণ্ডপে হামলা-ভাঙচুর-লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *