ফ্যাশন

মডেলকে ২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে পাঁচতারা!! খারাপ হেয়ার কাটের জন্য…..

বিউরো ঃ- যা বলেছিলেন, সেসবের ধার ধারেননি পাঁচতারা হোটেলের হেয়ার স্টাইলিস্ট। ইচ্ছেমতো কেটে দিয়েছিলেন চুল। আর সেজন্য মডেলিংয়ের চুক্তি হাতছাড়া হয়। কোটি টাকা হাতছাড়া হয়। তার পর মডেলিংয়ের কেরিয়ারে আর সেভাবে সাফল্যই পাননি তরুণী। মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করে দেন।এজন্য তরুণীকে ২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে দিল্লির ওই পাঁচতারা। নির্দেশ দিল ন্যাশনাল কনজিউমার ডিসপুটস রিড্রেসাল কমিশন (‌এনসিডিআরসি)‌।
বেঞ্চের প্রেসিডেন্ট আরকে আগরওয়াল এবং সদস্য ডা.‌ এস এম কান্তিকার জানিয়ে দিলেন, ওই তরুণীকে ২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে পাঁচতারা। রায় দিতে গিয়ে বললেন, ‘‌এই নিয়ে কোনও সন্দেহই নেই, যে মহিলারা তাঁদের চুল নিয়ে খুব সতর্ক এবং যত্নশীল। চুল ভালো রাখতে অনেক টাকাও খরচ করেন তাঁরা। চুলের সঙ্গে আবেগ জড়িয়ে রয়েছে তাঁদের। অভিযোগকারী নিজের লম্বা চুলের জন্য হেয়ার প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন করতেন। অতীতে প্যান্টিন, ভিএলসিসি-র মতো পণ্যের বিজ্ঞাপন করেছেন।’‌
এর পরেই বেঞ্চ জানাল, ওই স্টাইলিস্ট মডেলের নির্দেশ না মেনে চুল কেটেছিলেন। সে কারণে তরুণীর সেরা মডেল হওয়ার স্বপ্ন ভেঙে গিয়েছিল। আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছিলেন। জীবনযাপনের মান খাটো করতে বাধ্য হন তিনি। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন। একটি ম্যানেজমেন্ট সংস্থায় চাকরি করতেন তরুণী। তাঁর কাজেও সমস্যা তৈরি হয়। এই যুক্তিতেই তাঁকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য ওই পাঁচতারা।
২০১৮ সালের ১২ এপ্রিল ওই তরুণী পাঁচতারার সাঁলোতে চুল কাটতে গেছিলেন। তার এক সপ্তাহ পরেই মডেলিংয়ের একটি ইন্টারভিউ ছিল। তিনি ওই সাঁলোতে নিয়মিত যেতেন। যাঁর কাছে চুল কাটতেন, তিনি সেদিন ছিলেন না। সাঁলোর ম্যানেজারের কথা অন্য এক জনের কাছে চুল কাটতে রাজি হন। বলেছিলেন, আগার দিকে চার ইঞ্চি চুল কাটতে। কিন্তু ওই স্টাইলিস্ট গোড়া থেকে চার ইঞ্চি চুল রেখে বাকিটা কেটে দেন। লম্বা চুল হারিয়ে মডেলিংয়ের চুক্তিও খোয়াতে হয় তাঁকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *