দেশের খবর প্রযুক্তি রাজ্যের খবর স্বাস্থ্য

পশ্চিমবঙ্গসহ ভারতের চার রাজ্যে আগামী দুই থেকে তিন দিন চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া ভবন।

পশ্চিমবঙ্গে তাপমাত্রা ছাড়াল ৪৫ ডিগ্রি, চার রাজ্যে চূড়ান্ত সতর্কতা। পশ্চিমবঙ্গসহ ভারতের চার রাজ্যে আগামী দুই থেকে তিন দিন চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া ভবন। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া বিহার, ওড়িশা ও অন্ধ্র প্রদেশে তাপপ্রবাহের দাপট চলবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যম মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।
আবহাওয়া ভবনের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমটি জানিয়েছে, পূর্ব ভারতে তাপপ্রবাহের দাপট দুই থেকে তিন দিন ধরে যেমন চলবে, আবার দক্ষিণ ভারতে এই পরিস্থিতি জারি থাকবে আগামী পাঁচ দিন।
গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা ও ঝাড়খণ্ডের কিছু অংশে বুধবার পর্যন্ত, আবার কোথাও কোথাও বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি বজায় থাকবে। অন্যদিকে রায়লসীমা, অভ্যন্তরীণ কর্ণাটক, তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশে শুক্রবার পর্যন্ত তাপপ্রবাহ চলবে। এ ছাড়া তেলেঙ্গানা ও সিকিমের কিছু অংশেও তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া ভবন।
এদিকে সোমবার দেশটির মধ্যে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল পশ্চিমবঙ্গের কলাইকুন্ডায়, ৪৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
তার পরই ছিল অন্ধ্র প্রদেশের নান্দিয়ালে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তৃতীয় স্থানে ছিল ওড়িশার বারিপদা ও পশ্চিমবঙ্গের পানাগড়। সোমবার ওই দুই জায়গায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে ছিল পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর, পানাগড় ও সিউড়ির তাপমাত্রা।
অন্যদিকে বিহারের শেখপুরা, ভাগলপুর ও পূর্ণিয়া, উত্তর প্রদেশের প্রয়াগরাজ, ওড়িশার আঙ্গুল এবং অন্ধ্র প্রদেশের অনন্তপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
এ ছাড়া প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পূর্ব ও দক্ষিণ ভারত যখন রোদে পুড়ছে, তাপপ্রবাহের দাপটে যখন নাভিশ্বাস উঠছে, উত্তর-পশ্চিম ভারতে বিপরীত চিত্র ধরা পড়ছে। পূর্ব আফগানিস্তান ও উত্তর-পশ্চিম রাজস্থানের ওপর দুটি ঘূর্ণিঝড়ের জেরে ওই অঞ্চলে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড় ও উত্তর প্রদেশে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বজ্রপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া ভবন। আবার হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ডে শিলাবৃষ্টি এবং জম্মু-কাশ্মীরে ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।
পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব আসামের ওপর একটি ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হওয়ায় অরুণাচল প্রদেশে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি এবং তুষারপাত হতে পারে। অন্যদিকে আসাম, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম ও ত্রিপুরায় শুক্রবার পর্যন্ত বজ্রপাতসহ বৃষ্টি এবং ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

 

সূত্র : বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *