স্বাস্থ্য

নিয়মিত ব্রেস্ট ম্যাসাজ মহিলাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে বিশেষ উপদায়ী, কেন জানেন??

তনুশ্রী ভান্ডারী ডেক্স ঃ-

অনেকেরই ব্রেস্টের বৃদ্ধি সেই ভাবে হয় না বয়সের সাথে সাথে। স্তনের সাইজ ঠিক রাখা,ব্রেস্ট যাতে ঝুলে না পরে সেই জন্য ব্রেস্ট ম্যাসাজ করা দরকার এটা অনেকেই জানেন। কিন্তু জানেন কি ব্রেস্ট ম্যাসাজের আরও অনেক গুণ আছে। শুধু ব্রেস্টর বৃদ্ধি ঘটাতে নয়, আরও অনেক উপকারিতা আছে ব্রেস্ট ম্যাসাজের। জানুন কিভাবে করবেন ব্রেস্ট ম্যাসাজ। এবং কেন করবেন।

১. ব্রেস্ট ক্যান্সারঃ এখন প্রচুর মানুষের এই সমস্যা দেখা যাচ্ছে। এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে অনেকটাই সাহায্য করে ব্রেস্ট ম্যাসাজ। ব্রেস্ট ম্যাসাজ করলে রক্তসঞ্চালন বাড়ে এবং মেয়েদের শরীরে প্রয়োজনীয় হরমোনের পরিমাণ বাড়ে। যা কিনা ব্রেস্ট ক্যান্সার রোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এই হরমোন ব্রেস্ট ক্যান্সার হাওয়া থেকে রক্ষা করে। নিয়মিত ব্রেস্ট ম্যাসাজ করলে ব্রেস্টের টিস্যুগুলির পরিবর্তন হয়। যা ক্যান্সার থেকে মুক্ত থাকতে সাহায্য করে।

২. ব্রেস্টে ব্যথাঃ অনেকেরই ব্রেস্টে ব্যথা হয় যখন পিরিয়ড চলে। এই ব্যথা কমাতে ব্রেস্ট ম্যাসাজ করা দরকার। নিয়মিত ব্রেস্ট ম্যাসাজ করলে এই ধরনের ব্যথা, অস্বস্তি কমে যায়। কিন্তু যদি খুব বেশি ব্যথা করে তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া দরকার।

৩. ব্রেস্ট ঝুলে যাওয়াঃ অনেকেরই ব্রেস্ট খুব অল্প বয়সেই ঝুলে যায়। এতে খুবই অস্বস্তি হয় ও বাজে দেখতে লাগে। এটি আটকাবার জন্য ব্রেস্ট ম্যাসাজ দরকার।ব্রেস্ট মেসাজ  করলে এই সমস্যা আটকান যায়। ব্রেস্ট ম্যাসাজ ব্রেস্টকে টাইট রাখতে বেশ সাহায্য করে। তার ফলে ব্রেস্ট ঝুলে যায় না।

৪. ব্রেস্ট শেপঃ অনেকেরই শরীরের বৃদ্ধি ঘটার সাথে সাথে ব্রেস্টের বৃদ্ধি সেই ভাবে ঘটে না। এর জন্য নিজের খুবই অস্বস্তি হয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ব্রেস্ট ম্যাসাজের থেকে ভালো আর কিছু হয়না। নিয়মিত ব্রেস্ট ম্যাসাজ করলে ব্রেস্টে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। টিস্যুগুলির পরিবর্তন হয়। তার ফলে ধীরে ধীরে ব্রেস্ট বাড়তে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *