দেশের খবর অর্থনীতি স্বাস্থ্য

দেশে লাফিয়ে বাড়ছে কন্ডোমের ব্যবসা।

দেশে লাফিয়ে বাড়ছে কন্ডোমের ব্যবসা। 2023 সালের হিসেব বলছে, দেশে কন্ডোমের বাজার গত পাঁচ বছরে সবচেয়ে দ্রুত গতিতে বেড়েছে। বিশেষ করে গত বছরে অর্থাৎ 2023 সালে ভারতে কন্ডোমের বাজার বৃদ্ধি প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। দেশে গত কয়েক বছরে ডটেড, রিবড, জার্ট ফ্লেভারড এবং নাইট গ্লোয়িং ভ্যারিয়েন্টের মতো কন্ডোম বাজার ছেয়ে ফেলেছে। সেই কারণেই মূলতঃ দেশে দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে কন্ডোমের বাজার।

কন্ডোম প্রস্তুতকারক সংস্থা জানাচ্ছে, কন্ডোম নিয়ে মানুষের চিন্তাভাবনা বদলে যাচ্ছে। এখন এটি কেবল সুরক্ষার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, লোকেরা তাঁদের এক্সপিরিয়েন্স বাড়ানোর জন্য এখন এগুলো ব্যবহার করছে। ম্যানকাইন্ডের এমডি এবং ভাইস চেয়ারম্যান, রাজীব জুনেজা এ প্রসঙ্গে জানান, কন্ডোম সবসময় সিকিউরিটির দৃষ্টিকোণ থেকে বিক্রি করা হত, আগে তরুণ প্রজন্ম মনে করত, এটি সঠিক সময়ের জন্য একটি বাধা স্বরূপ। কিন্তু বর্তমানে নানা নতুন ধরনের প্রোডাক্ট যুবকদেরও এ বিষয়ে আকৃষ্ট করছে। এছাড়াও কন্ডোমের ক্ষেত্রে মহিলারা নিজেদের পছন্দ- অপছন্দ সম্পর্কে মতদান করছেন। আগে এই সিদ্ধান্ত শুধু পুরুষরাই নিতেন। উল্লেখ্য, বিষয় হল দেশে মোট কন্ডোমের বাজারের মধ্যে ম্যানফোর্সের শেয়ার রয়েছে 30 শতাংশেরও বেশি।

কন্ডোমের বাজারে কত ভাগ কার দখলে?

ভারতীয় বাজারে রেকিটের ডিউরেক্সের 14.9 শতাংশ শেয়ার রয়েছে। টিটিকে হেলথকেয়ারের ব্র্যান্ড স্কোর 8.5 শতাংশ বাজার দখল রয়েছে। আবার গোদরেজ কনজিউমার প্রোডাক্টের কামসূত্রের শেয়ার রয়েছে 8 শতাংশ। সম্প্রতি এই কোম্পানিগুলো অনেক ধরনের কন্ডোম বাজারে নিয়ে এসেছে। এর মধ্যে রয়েছে আল্ট্রাথিন ডিজাইন, ভেগান, কেমিক্যাল ছাড়া কন্ডোম।

প্রধানত গর্ভনিরোধক এবং যৌনবাহিত রোগের সংক্রমণ এড়াতে ব্যবহৃত হয়। যদিও দেশের বিপুল অংশে যৌনতা সম্পর্কিত বিশ্বাসের কারণে, দোকানে গিয়ে কন্ডোম কেনা সহজ নয়। কনডম অ্যালায়েন্স 2021-এর রিপোর্ট অনুসারে, ‘ভারতে যৌনতা সংক্রান্ত কথা আলোচনার জন্য যে ছুঁচিবাই রয়েছে তা পশ্চিমের দেশগুলোতে দেখা যায় না।

টিটিকে হেলথকেয়ারের মার্কেটিং এর সহকারী ভাইস প্রেসিডেন্ট বিশাল ব্যাস বলেন, এখন এ নিয়ে মানুষের চিন্তাভাবনা বদলে যাচ্ছে। অনলাইন কেনাকাটা এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। গত কয়েক বছরে এই বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা বৃদ্ধি পেয়েছে। আবার করোনার সময় থেকে অনলাইন কেনার ঝোঁক বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষকে একটি বিকল্প অপশনও দেওয়া গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *