আন্তর্জাতিক রাজ্যের খবর

দীর্ঘ টালবাহানার পর খুলল গেদে সীমান্ত।

অঞ্জন শুকুল,  নদীয়া :-  করোনার কারণে বন্ধ থাকার পর রবিবার প্রায় দেড় বছর পর নদীয়ার গেদে সীমান্ত চালু হলেও বিকেল পর্যন্ত বৈধ কাগজপত্র থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের নাগরিকদের ভারতে প্রবেশ করতে দেয়নি বিএসএফ। কারণ নির্দেশ না আসা। ফলে সীমান্তে আটকে ছিলেন বাংলাদেশের বেশ কিছু নাগরিক। শেষ পর্যন্ত সন্ধ্যে নাগাদ তাদের ভারতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়।
পাশাপাশি রবিবার সকাল থেকেই কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন দপ্তর যথারীতি কাজ করে গেছে। বিএসএফ সারাদিন বাংলাদেশের নাগরিকদের ভারতে প্রবেশে বাধা দেওয়ায় ভীষণ ক্ষুব্ধ গেদের বিভিন্ন ব্যবসায়ী মহল।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া স্বীকৃত এক মানি চেঞ্জিং এজেন্সির মালিক দিনবন্ধু মহলদার সরাসরি বিএসএফের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কারণ বাংলাদেশীরা এ পথে ভারতে না এলে তাদের ব্যবসা হবে না। রেভিনিউ ক্ষতি হবে ভারত সরকারেরও।

গেদে আন্তর্জাতিক স্টেশন বাংলাদেশের পথে নদীয়ায় ভারতের শেষ রেলস্টেশন। এখান দিয়েই মৈত্রী এক্সপ্রেস বাংলাদেশে যাতায়াত করে। যদিও এখন তা বন্ধ রয়েছে। যে স্টেশন সব সময় জমজমাট থাকত, আজ রবিবার বিকেল পর্যন্ত তা শুনশান ছিল। এ চিত্র বিগত দেড় বছরের। ফলে এখানকার ব্যবসায় নির্ভরশীল বিভিন্ন স্তরের মানুষের আজ নুন আনতে পান্তা ফুরায়। তবে এদিন থেকে আবার আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *