রাজনৈতিক খবর

তৃণমূল প্রার্থী নাকি ‘ বাংলাদেশী নাগরিক’! ইলেকশন পিটিশন খারিজ করে নেত্রীকে ভৎসনা হাইকোর্টের !!

বিউরো রিপোর্ট ঃ-

বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রে পরাজিত তৃণমূল প্রার্থী আলোরানি সরকারের দায়ের করা ইলেকশন পিটিশন খারিজ করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। দক্ষিণ বনগাঁ বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী ছিলেন আলোরানি সরকার। নিজেকে ভারতীয় বলে দাবি করতে পারেন না বলে হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণে জানানো হয়েছে।

বিধানসভা নির্বাচনে বনগাঁ দক্ষিণের কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছিলেন আলোরানি সরকার। বিধানসভা নির্বাচনে হেরে গেলে তিনি হাইকোর্টে ইলেকশন পিটিশন জমা করেন। শুক্রবার তাঁর ইলেকশন পিটিশন খারিজ করে দেওয়া হয়। হাইকোর্টের বিচারপতি জানিয়েছেন, আদালতে সামনে যে নথি পেশ করা হয়েছে, সেখানে দেখা গিয়েছে, বাংলাদেশের ভোটার লিস্টে আলোরানি সরকারের নাম রয়েছে। ভারতে ডুয়াল সিটিজেনশিপ চালু নেই। তাই আলোরানি ভারতের নাগরিক বলে দাবি করতে পারেন না।

আদালত জানিয়েছে, গোটা বিষয়টি নির্বাচন কমিশন খতিয়ে দেখবে। আলোরানি সরকাররের নাগরিকত্ব কোন দেশের, তাও নির্বাচন কমিশন খতিয়ে দেখবে। নির্বাচন কমিশন এই বিষয়ে উপযুক্ত পদক্ষেপ করবে। আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে, আলোরানি সরকার কোনওভাবেই ভারতের নাগরিক বলে দাবি করতে পারেন না।

প্রসঙ্গে আইনজীবী জানিয়েছেন, আলোরানি সরকার ভারতের নাগরিক হওয়ার বেশ কিছু প্রমাণ দেখিয়েছেন। কিন্তু তারপরেও দেখা গিয়েছে, বাংলাদেশে ভোটার লিস্টে তাঁর নাম রয়েছে। আলোরানি সরকার যে প্রমাণ আদালতে পেশ করেছেন, তাতে দেখা গিয়েছে, তিনি বৈবাহি সূত্রে একজন বাংলাদেশের নাগরিক। তারপর তিনি ভারতে এসেছেন। কোনওভাবে ভারতের নাগরিকত্ব পেয়েছেন। সেটা কতটা বৈধ সেই নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *