রাজ্যের খবর অর্থনীতি জেলার খবর

গাড়িতে করে দিঘা, বকখালিতে ছুটি কাটাতে যাচ্ছেন? সঙ্গে মদ রয়েছে? পড়তে পারেন বিপাকে।

সমুদ্রপ্রিয় বাঙালির কাছে দিঘা, বকখালি কোনও নতুন ডেস্টিনেশন নয়। দু’একদিনের ছুটি কাটাতে অনেকেই দিঘা বা বকখালি চলে যান। যুবকদের কাছেও পছন্দের অন্যতম গন্তব্য দিঘা, মন্দারমনি বা বকখালি। অনেকেই শুধুমাত্র নির্ভেজাল ছুটি কাটানোর জন্যই যান বকখালি, দিঘা। কলকাতা থেকে বকখালির দূরত্ব 150 কিমির মধ্যে। অন্যদিকে দিঘার দূরত্ব রয়েছে 200 কিমির মধ্যে। ফলে ট্রেনে করে বহু পর্যটক যেমন দিঘা যান, তেমনই প্রাইভেট গাড়ি করেও দিঘা বা বকখালি যাওয়ার রেওয়াজ রয়েছে। 3 থেকে 4 ঘণ্টার মধ্যে পৌঁছানো যেতে পারে বকখালি। দিঘা যেতে সময় লাগে 5 ঘণ্টার কাছাকাছি। অনেকেই দিঘায় পৌঁছে সুরার স্বাদ নিতে গাড়িতে করেই মদ নিয়ে যান। কিন্তু জানেন কী এ বিষয়ে আবগারি দফতরের কি নিয়ম রয়েছে?

গাড়িতে করে মদ বহন করার ক্ষেত্রে আবগারি দফতরের নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। এই নিয়ম না মানার অর্থ আপনি আইন ভঙ্গ করছেন। আবগারি দফতরের এক আধিকারিক সূত্রে খবর, রাজ্যের মধ্যেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় মদ নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে রাজ্যের আবগারি দফতরের নিয়ম মোতাবেক, কোনও ব্যক্তি 36 লিটার পর্যন্ত ফরেন লিকার বহন করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ক্য়াশ-মেমো থাকা বাধ্যতামূলক।

বিয়ারের ক্ষেত্রেও এই একই নিয়ম বলবৎ রয়েছে। অর্থাৎ বিয়ার বহন করতে হলেও প্রয়োজন ক্যাশ-মেমো। এক্ষেত্রে বহনকারীকে মাথায় রাখতে হবে পরিমাণ যেন 36 লিটারের বেশি না হয়ে যায়। এক্ষেত্রে ক্যাশমেমো সঙ্গে থাকা প্রয়োজন। অন্যথায় রয়েছে কড়া শাস্তির বিধানও।

প্রসঙ্গত, এই নিয়ম শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গের জন্যই। রাজ্যের বাইরে মদ নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোন রাজ্যে মদ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সেখানকার আবগারি দফতরের নিয়মও জানতে হবে মদ বহনকারীরকে। পাশাপাশি শুল্কের ক্ষেত্রেও রয়েছে নিয়ম। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গ লাগোয়া পড়শি রাজ্য বিহারে যেমন মদ নিষিদ্ধ। ফলে ওই রাজ্যে আপনি মদ বহন করতে পারবেন না। একই বিষয় প্রযোজ্য নাগাল্যান্ড ও মিজোরামের জন্যও। কারণ এই দুটি রাজ্যেও মদ নিষিদ্ধ।

প্রসঙ্গত, শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গ না। অন্য রাজ্যেও এমন নিয়ম রয়েছে। যেমন দিল্লিতে আবগারি দফতরের নিয়ম মোতাবেক কোনও ব্যক্তি 1 লিটারের বেশি মদ নিয়ে অন্য রাজ্য থেকে দিল্লি আসতে পারবেন না। তবে বিদেশ থেকে কোনও ব্যক্তি যদি ফ্লাইটে দিল্লি এয়ারপোর্টে আসেন, সেক্ষেত্রে 2 লিটার মদ তিনি বহন করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *