আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য

ক্যামেরায় ধরা পরল শিক্ষিকার যৌন কার্যাবলী

বিউরোঃ– একাধিকবার অনলাইন মিটিং বা ক্লাস চলাকালীন ক্যামেরা অন করেই যৌনতায় মেতেছেন একাধিক ব্যক্তি৷ ফের একবার সেই ঘটনাই ঘটল৷ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের মিটিং চলাকালীন নিজের পার্টনারের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হন টিচার৷ এবারের ঘটনাটি ঘটেছে জামাইকায়৷ বৈঠকে হাজির তাঁর বাকি সহকর্মীরা একেবারে স্তম্ভিত হয়ে যান গোটা ঘটনায়৷ ভাইরাল ফুটেজ একেবারে ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে গেছে৷

সপ্তাহ খানেক আগে জামাইকা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের মিটিং চলাকালীন একজন শিক্ষিকা বলছিলেন এই করোনা অতিমারিতে পড়াশুনো করানো ঠিক কতটা কঠিন তখনই একটা উইন্ডোতে দেখা যায় যৌনতায় লিপ্ত রয়েছেন আরও এক শিক্ষিকা৷ তাও অন্য শিক্ষিকা নিজেদের পেশার অপরিসীম গুরুত্ব নিয়ে বক্তব্য রাখেন প্রায় ২ মিনিট ধরেই ক্যামেরা অন রেখে যৌনতা চালিয়ে যান অভিযুক্ত শিক্ষিকা৷

আরও পড়ুন: গোমূত্র নয়, ফুচকার তেঁতুল জলে নিজের মূত্র মেশাচ্ছেন বিক্রেতা! আঁতকে নেটদুনিয়া

অন্যান্য অংশগ্রহণকারীরা তাঁকে সতর্ক করার চেষ্টা করেন। এমনকী গুরুত্বপূর্ণ মিটিং হওয়ায় তা রেকর্ড ও লাইভ স্ট্রিমিং হচ্ছে বলেও জানান। কিন্তু সেসব একদমই খেয়াল করেননি ওই শিক্ষিকা। এরই মধ্যে কেউ ভিডিয়োর অংশটি কেটে ছড়িয়ে দেন। নিমেষেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই বলছেন, শিক্ষিকার দোষ থাকতেই পারে। কিন্তু যিনি এই ভিডিয়ো ভাইরাল করেছেন, তিনিও সমানভাবে দোষী।

মারাত্মক এই ভিডিওতে দেখা যায় একজন পুরুষ নগ্ন হয়ে বিছানায় শুয়ে রয়েছেন অন্যদিকে এক মহিলা সেখানে গিয়ে নিজের পোশাক খুলে মিলন প্রক্রিয়া শুরু করলেন৷ এর আগেও একাধিকবার জুম কল চলাকালীন এই ধরণের নক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে, ফের একবার সেই ধরণের ঘটনা ঘটায় আলোচনা তুঙ্গে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *