স্বাস্থ্য

ওমিক্রণ আক্রান্তের মধ্যেও রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেল! এগিয়ে কলকাতা!

তনুশ্রী ভান্ডারী ডেক্স ঃ-

রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর রাজ্যে করোনা (coronavirus)আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের থেকে সামান্য বেড়ে। মৃত্যু সংখ্যা ১ বেড়েছে। এদিন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬৫ জন। সুস্থতার হার একই রয়েছে, ৯৮.৩৩% । এদিন সুস্থ হয়েছেন ৫৬৮ জন। একনজরে বাংলার করোনা পরিসংখ্যানস্বাস্থ্য দফতরের রিপোর্টে জানানো হয়েছে, বিগত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৫৬৫ জন।শনিবার যা ছিল ৫৫৬ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ লক্ষ ২৭ হাজার ০৭৬ জন। রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯, ৬৬৯। এদিন মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। শনিবার সংখ্যাটা ছিল ৮।

মোট আক্রান্তের নিরিখে পরিসংখ্যানরাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত ১৬ লক্ষ ২৭ হাজার ০৭৬ জনের মধ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রোগী ৭৪৮৯ জন। এদিন সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে ১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা মুক্ত হয়েছেন ৫৬৮ জন। মোট করোনা মুক্ত হলেন ১৫ লক্ষ ৯৯ হাজার ৯১৮ জন।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনায় করোনা পরিসংখ্যানকলকাতায় এদিন করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১৭৪ (১৬৩)। উত্তর ২৪ পরগনায় ১০৪ (১১৩) জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় শুধু কলকাতায় প্রাণ হারিয়েছেন ৫২৮৯ জন। আর উত্তর ২৪ পরগনায় মৃতের সংখ্যা ৪৯৯৫। কলকাতায় এদিন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমেছে ২ জন।

এদিন পর্যন্ত কলকাতায় মোট করোনা আক্রান্ত ৩,৩২, ২৫৮। শনিবার কলকাতায় ৩ জনের মৃত্যুর পরে এদিনও মৃতের সংখ্যা ৩। এখন পর্যন্ত করোনা মুক্ত হয়েছেন মোট ৩,২৪, ৬৯৪ জন। এখনও সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ২২৭৫ জন।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ৩,৩৫, ৪০৫ জন। এদিন মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। এখন পর্যন্ত করোনা মুক্ত হয়েছেন মোট ৩, ২৯, ০৬১ জন। এখনও সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ১৩৪৯ জন। এদিন তালিকা থেকে বাদ গিয়েছেন ২ জন।

কোন জেলায় দৈনিক কত সংক্রমণ(ব্রাকেটে আগের দিনের আক্রান্তের সংখ্যা)
গত ২৪ ঘন্টায় আলিপুরদুয়ারে ১ (৪), কোচবিহারে ৮ (১১) , দার্জিলিং ১৮ (১২), কালিম্পং ২ (১) , জলপাইগুড়ি ৭ (৮), উত্তর দিনাজপুরে ৭ (৮), দক্ষিণ দিনাজপুরে ৬ (৩), মালদহ ৫ (৬), মুর্শিদাবাদ ১ (৩), নদিয়া ৩৩ (৩২), বীরভূম ১৯ (২৪), পুরুলিয়া ৪ (২), বাঁকুড়ায় ১৮ (১১), ঝাড়গ্রাম ২ (৪), পশ্চিম মেদিনীপুর ১৩ (১৬), পূর্ব মেদিনীপুর ৪ (৮), পূর্ব বর্ধমান ৮ (৯), পশ্চিম বর্ধমান ১৮ (১৭), হাওড়া ২৯ (২৯), হুগলিতে ৫৬ (৩৪), উত্তর ২৪ পরগনায় ১০৪ (১১৩), দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২৮ (৩৮) জন আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্তের নিরিখে জেলাগুলির মধ্যে এদিন প্রথমে উত্তর ২৪ পরগনা ( ১০৪), দুনম্বরে হুগলি (৫৬), তিন নম্বরে দক্ষিণ ২৪ পরগনা (২৮)।

এদিন ১৯ জেলায় মৃত্যুর খবর এদিন উত্তরবঙ্গের কোথাও মৃত্যু হয়নি। অর্থাত্‍ আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহে কোনও মৃত্যু হয়নি এদিন। মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকেও মৃত্যুর কোনও খবর নেই। এদিন সব থেকে বেশি ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনায়।

এদিন যে ৮ জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে, সেগুলি হল কালিম্পং (১), উত্তর দিনাজপুর (৩), নদিয়া (৯), বীরভূম (৩), পুরুলিয়া (২), বাঁকুড়া (৯), পশ্চিম মেদিনীপুর (১), হুগলি (১৪)।

রাজ্য জুড়ে করোনার পরীক্ষানেই এদিন উত্তরবঙ্গের কোথাও মৃত্যু হয়নি। অর্থাত্‍ আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহে কোনও মৃত্যু হয়নি এদিন। মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকেও মৃত্যুর কোনও খবর নেই। এদিন সব থেকে বেশি ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনায়।

এদিন যে ৮ জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে, সেগুলি হল কালিম্পং (১), উত্তর দিনাজপুর (৩), নদিয়া (৯), বীরভূম (৩), পুরুলিয়া (২), বাঁকুড়া (৯), পশ্চিম মেদিনীপুর (১), হুগলি (১৪)।

রাজ্য জুড়ে করোনার পরীক্ষারাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিনে জানানো হয়েছে এদিন পর্যন্ত করোনা টেস্ট হয়েছে ২ কোটি ১০ লক্ষ ০৪ হাজার ৪৮২। ১৫৫ টি ল্যাবরেটরিতে এই পরীক্ষা হচ্ছে রাজ্য জুড়ে। এদিন পরীক্ষা হয়েছে ৩৬, ৮২৯ জনের। মোট পরীক্ষার নিরিখে করোনা সক্রিতার হার ১.৫৩ শতাংশ ( শনিবার যা ছিল ১.৪৫ %) । প্রতি ১০ লক্ষে পরীক্ষা হয়েছে ২, ৩৩, ৩৮৩ জনের। আরটিপিসিআর আর অ্যান্টিজেন টেস্টের রেশিও হল ৫৪:৪৬।

১৯ ডিসেম্বর ভ্যাকসিন প্রাপকের সংখ্যাএদিন সারা রাজ্যে ভ্যাকসিন পেয়েছেন ৪,১৬, ২৭৫ জন। প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৩০, ২৬২৭ জন। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৩,৮৫, ৬৪৮ জন। এদিন পর্যন্ত রাজ্যে ভ্যাকসিন পেয়েছেন ৯, ৯৩, ৪২, ৬৮৮ জন। যাঁদের মধ্যে প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৬, ৪১, ০০, ০৯৮ জন। আর দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৩, ৫২, ৪২, ৫৯০ জন। এদিন রাজ্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার কেন্দ্রের সংখ্যা ৪৮১৬।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *